রবিবার | ২৮শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



সত্যের পথে অবিচল | ২৪ ঘণ্টা বাংলা সংবাদ

বীর বাঘা যতীন এর পৈত্রিক ভিটায় বাঘা যতীন একাডেমির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

বীর বাঘা যতীন এর পৈত্রিক ভিটায় বাঘা যতীন একাডেমির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

­­ব্রিটিশ আন্দোলনের মহানায়ক বিপ্লবী বীর বাঘা যতীন এর পৈত্রিক ভিটায় বাঘা যতীন একাডেমির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ।


এ উপলক্ষে ঝিনাইদহ জেলার হরিনাকুন্ডুর রিশখালী গ্রামে শনিবার বিকেলে ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন ও এক স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

হরিনাকুন্ডু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর হুসাইন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে সেখানে উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান পিপিএম। ঝিনাইদহ পৌর মেয়র এবং ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সাইদুল করিম মিন্টু হরিনাকুন্ডু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দা নাফিস সুলতানা। এছাড়াও আরে উপস্থিত ছিলেন ৪নং দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী বুড়ো, সরোয়ার জাহান বাদশা, সুমন শিকদার প্র্মূখ।

উক্ত অনুষ্ঠানে ঝিনাইদহ জেলা ও হরিনাকুন্ডু উপজেলা সহ বিভিন্ন এলাকার নানা শ্রেণী পেশার মানুষ। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পৌর মেয়র সাইদুল করিম মিন্টু বলেন, হরিনাকুন্ডুে কোন জনসভায় তিনি কখনো এত জনসমুদ্র দেখেননি।


কেউ মনে রাখে কি না রাখে, জানিনা। তবে ইতিহাসের কিংবদন্তী এক মহাবীর। যার নাম- যতীন্দ্র নাথ মুখোপাধ্যায় ওরফে বাঘা যতীন। ঝিনাইদহ জেলার গর্বিত এই মহা নায়কের বাড়ি হরিনাকুন্ডুর রিশখালী গ্রামে।

তার পিতার নাম উমেশচন্দ্র মুখোপাধ্যায় এবং মাতার নাম শরৎশশী। ১৮৭৯ খ্রীস্টাব্দের ৭ ডিসেম্বরে কুষ্টিয়া জেলার কুমার খালী থানার কয়া গ্রামে মামা বাড়িতে জন্ম গ্রহণ করেন তিনি।


শারীরিক শক্তিতে বিখ্যাত ছিলেন বিপ্লবী বাঘা যতীন। শৌচাগারের বদনা দিয়ে বাঘের সাথে যুদ্ধ করে বাঘকে বধ করার কারণে তিনি বাঘা যতীন নামে সমধিক পরিচিত হন বলে এলাকায় জনশ্রুতি রয়েছে।

উপমহাদেশের সবচেয়ে দেশ প্রেমিক এই বীরের নিয়ে ইতিহাসে অনেক রোমহষর্ক কাহিনী রয়েছে, যা স্বল্প পরিসরে লিখে শেষ করা সম্ভব নয়।

তবে যথাযথ ভাবে এই বীরের মর্যাদা দেয়া হয়নি। জানা যায়, ভারতের বালেশ্বর হাসপাতালের অদূরে চাষাখন্ড নামক যায়গায় বাঘা যতীন স্মৃতি সৌধ আছে। কলকাতা শহরেও আাছে একটি রেল স্টেশন।

কিন্তু অত্যান্ত দুঃখের বিষয়, তার পৈত্রিক ভিটা হরিনাকুন্ডুর রিশখালী গ্রামে এই বীরের নামে কোন স্মৃতি চিহ্ন ছিল না। বর্তমানে ঝিনাইদহের সুযোগ্য জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ ও আওয়ামী লীগ নেতা ও পৌর মেয়র সাইদুল করিম মিন্টুর ঐকান্তিক চেষ্টায় আজ বাঘা যতীন একাডেমির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধন করে এই প্রজন্মের মানুষের কাছে বিপ্লবী বীর বাঘা যতীন এর পরিচিতি তুলে ধরলেন।

অবশ্য জেলা শহর ঝিনাইদহে তাঁর নামে একটি সড়ক আছে। আমার জানা মতে, ২০১৩ ইং সালের দিকে সরকারি অনুদানে রিশখালী গ্রামে বাঘা যতীন এর নামে একটি ক্লাবের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছিল।

যা পরবর্তীতে আর আলোর মুখ দেখেনি। ১৮১৫ সালের এই দিনে মাত্র ৩৬ বছর বয়সে শত্রুর বুলেটে ইহলোক ত্যাগ করেন এই মহান দেশ প্রেমিক।

Facebook Comments Box

Posted ৩:৫০ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০

protidinerkushtia.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

মোঃ শামীম আসরাফ, সম্পাদক ও প্রকাশক
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় :

ঝাউদিয়া বাবলু বাজার, দৌলতপুর, কুষ্টিয়া ফোনঃ +৮৮ ০১৭৬৩-৮৪৩৫৮৮ ই-মেইল: protidinarkushtia@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদনকৃত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
error: Content is protected !!