শনিবার | ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



সত্যের পথে অবিচল | ২৪ ঘণ্টা বাংলা সংবাদ

মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ এমপি’র বিরুদ্ধে সামাজিক মাধ্যমে লিখিত এ্যাড শরীফ উদ্দিন রিমনের মিথ্যা তথ্য বিশিষ্ট বক্তব্যের প্রতিবাদ।

মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ এমপি’র বিরুদ্ধে সামাজিক মাধ্যমে লিখিত এ্যাড শরীফ উদ্দিন রিমনের মিথ্যা তথ্য বিশিষ্ট বক্তব্যের প্রতিবাদ।

মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ এমপি’র বিরুদ্ধে সামাজিক মাধ্যমে লিখিত এ্যাড শরীফ উদ্দিন রিমনের মিথ্যা তথ্য বিশিষ্ট বক্তব্যের প্রতিবাদ।


আপনার ভাষ্যমতে, ২০১৮ সালে বাদশাহ্ এমপি হওয়ার পর ফিলিপনগর- মরিচা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ জনাব আঃ মান্নান সাহেব আপনার কোন কথায় শুনেনি বা কোন হিসেব নিকাশ দেয়নি। আমার প্রশ্ন হলো, আপনি ঐ কলেজের তিনবারের সভাপতি হওয়া সত্ত্বেও দুই বছর পেরিয়ে গেল ঐ কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে লিখিত কোন ব্যবস্হা গ্রহণ করলেন না কেন? তাহলে কি এটা পরিস্কার নয় যে ‘শর্ষের মধ্যে ভূত’।

আপনার ভাষ্যমতে, অধ্যক্ষ আঃ মান্নান আপনার সহি জাল করে তাঁর ভাই ইউনুসকে নৈশপ্রহরী পদে নিয়োগ দিয়েছে। আমার জানামতে বাদশাহ্ ভাই যখন এমপি ছিলনা অর্থাৎ ২০১৮ সালে এই নিয়োগ আপনার সভাপতিত্বে সম্পুর্ণ হয়েছে এবং এই নিয়োগের রেজুলেশন ও আছে। তাহলে অধ্যক্ষ সাহেবকে আপনার পেছনে কিভাবে এমপি সাহেব লেলিয়ে দিল ? দয়া করে নিজের কৃতকর্মের ফল অন্যের উপরে চাপিয়ে দিবেননা তাতে হিতে বিপরীত হবে।

আপনার ভাষ্যমতে, এমপি সাহেব আপনার সকল চেয়ার এক এক করে কেড়ে নিচ্ছে। আমার জানামতে, আপনার নিজের চেয়ার হারানোর জন্য আপনি নিজেই যথেষ্ট। আপনি যে চেয়ারে বসেছেন সেই চেয়ার কে কলুষিত করেছেন এবং সেই চেয়ারের ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন এটা দৌলতপুর উপজেলা নয় বরং কুষ্টিয়া জেলার অনেক সম্মানিত ব্যক্তিও ওয়াকিবহাল।


আপনার ভাষ্যমতে, অধ্যক্ষের ভাইয়ের বেতন শিক্ষক, কর্মচারীদের সাথে আসলে ভয়ে অধ্যক্ষ বেতন বিল সহি করতে আপনার কাছে আসেনি।

আমার জানামতে, অধ্যক্ষ সাহেব ঈদুল আজহার দশদিন আগে শিক্ষক – কর্মচারীদের বেতন ও ঈদ বোনাসের বিলের সমস্ত প্রক্রিয়া শেষ করে আপনাকে বার বার অবহিত করে এবং অধ্যক্ষ সাহেব এই বিলে আপনাকে সহি না করাতে পেরে এমপি সাহেবের সরণাপর্ন হয় তখন এমপি সাহেব আপনার সাথে বারবার মোবাইল ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগের চেষ্টা করেন কিন্তুু অনেক কর্মচারী ছিল যাদের ঈদের আনন্দ লুকিয়ে ছিল ঔ বেতন ও বোনাসের মধ্যে, তাদের দিকে আপনি মুখ ফিরিয়ে নিয়ে ঈদের আগে বেতন বিল ও বোনাসের কাগজে সহি করেননি যার ফলে কলেজের শিক্ষক ও কর্মচারীরা আপনার ওপর চরম অসন্তুষ্ট হয় এবং অবস্হা বেগতিক দেখে আপনি ঈদের তিনদিন পর বেতন বিলে সহি করতে অন্য শিক্ষকের মাধ্যমে অধ্যক্ষকে জানান।


আপনি যে ক্লাবের কথা বলছেন তা দারোগার মোড়ে অবস্হিত ‘ সূর্য তোরণ ক্লাব ‘ যা আমার জন্মের অনেক আগে প্রতিষ্ঠিত যা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন মাননীয় সাংসদ বাদশাহ্ ভাই। সেখানে অনেকের ঘাম ঝরান টাকা এবং পাড়ায় ঝাড়ের বাঁশ উঠিয়ে নির্মিত যা পাড়ার ১০০% জনগণ জানে। তাছাড়া এই ক্লাবটির নামকরণ ও করেন প্রিয় বাদশাহ্ ভাই। জনাব হাসিনুর রহমান যাকে আপনি স্বার্থের জন্য বিএনপি বলছেন তিনিই ২০১২ সালের আহ্বায়ক কমিটির ফিলিপনগর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি যেখানে আপনি নিজেই যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

ফিলিপনগর স্কুলের পুর্নাঙ্গ কমিটির মেয়াদ শেষ হয়ে প্রায় বছর খানেক এডহক কমিটি দ্বারা পরিচালিত হচ্ছিল এবং এই অচল অবস্থা থেকে নিরসনের জন্য কমিটির সদস্যরা বার বার এমপি সাহেব অথবা তাঁর পরিবারের কোন সদস্যকে সভাপতি করার জন্য এমপি সাহেবকে অনুরোধ করে। সেই অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে এমপি সাহেবের সহধর্মিণী সভাপতির দায়িত্ব নিতে সম্মত হন। ফিলিপনগর স্কুলের বিল্ডিং তারাগুনিয়া স্কুলে দেওয়া হয়েছে এটা পুরোটায় মিথ্যে, বানোয়াট এবং সচেতন মানুষের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার প্রয়াস মাত্র । ফিলিপনগর স্কুলে মাননীয় সংসদ সদস্য বাদশাহ্ ভাই এমপি হওয়ার পর একটি তিন তলা ভবন এবং ১৩ লক্ষ টাকার প্রকল্প বরাদ্দ দেন এবং নতুন চার তলা ভিত্তি বিশিষ্ট একতলা ভবনের বরাদ্দ চলতি অর্থ বছরে দিয়েছেন। এমপি সাহেব আজকে নয় এমপি না থেকে ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসলে এই দৌলতপুর উপজেলার ৭ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন ভবনের বরাদ্দ দেন।

আমার জানামতে দৌলতপুর উপজেলায় এখন পর্যন্ত কোন কলেজের প্রিন্সিপাল ও ভাইস প্রিন্সিপাল নিয়োগতো দুরের কথা সেই পদের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পর্যন্ত হয়নি। আর হ্যাঁ অধ্যক্ষ সাহেেবর মথুরাপুর কলেজে সমস্যা ছিল, ঢাকায় চাকরি করার সময় সমস্যা ছিল যেনেও আপনি তাঁকে নিয়োগ দিলেন ফিলিপনগরের মত কলেজে যেখানে আপনার নাড়ি পোতা আছে, তাতে কি জনগন বুঝবে ‘রতনে রতন চেনে ।’

Facebook Comments Box

Posted ৩:৪৯ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০

protidinerkushtia.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

মোঃ আসাদুজ্জামান, উপদেষ্টা
মোঃ রাকিব হাসান, প্রধান সম্পাদক
মোঃ খালিদ হাসান রিংকু, সম্পাদক ও প্রকাশক
গোলাম কিবরিয়া জীবন, বার্তা সম্পাদক
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় :

দিঘলকান্দী,(পুলিশ ক্যাম্প বাজার), ঝাউদিয়া, দৌলতপুর, কুষ্টিয়া-৭০৫০।
নিউজ রুম : +৮৮ ০১৭৩২-৭১৩৪২১
ই-মেইল: protidinarkushtia@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদনকৃত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
error: Content is protected !!