যশোরে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় দুইজন নিহত ও চারজন আহত।

যশোরে আলাদা দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত ও চারজন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন বাঘারপাড়া উপজেলার ভদ্রবিলা গ্রামের আলী বক্সের ছেলে তৈয়ব আলী (৫০) এবং যশোর উপজেলার ধোপাখোলা এলাকার মৃত আমির হোসেনের ছেলে জাহিদ হোসেন। আহত চারজনকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, আজ বেলা ১১টার দিকে তৈয়ব আলী ছেলে সুজনের মোটরসাইকেলে চেপে যশোর-মাগুরা মহাসড়ক ধরে খাজুরা এলাকায় যাচ্ছিলেন।

 

হাশিমপুর বাজারের কাছে তাদের মোটরসাইকেলটি একটি গাড়িকে সাইড দিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সময় সামনে থাকা একটি বাসের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে বাবা-ছেলে আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনেন। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তৈয়ব আলীকে মৃত ঘোষণা করেন। ডা. আহমেদ তারেক সামস বলেন, হাসপাতালে আসার আগে তৈয়ব আলীর মৃত্যু হয়েছে। সুজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

ঝিনাইদহের বারোবাজার হাইওয়ে থানার ওসি শেখ মাহফুজুর রহমান হাশিমপুরে দুর্ঘটনায় বাসটি আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন। এদিকে, যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের পুলেরহাট এলাকায় বেনাপোলগামী একটি ট্রাক একটি ইজিবাইককে ধাক্কা দেয়। এতে ইজিবাইক চালক ইদ্রিস, যাত্রীসহ চারজন আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সার্জারি বিভাগের ইন্টার্ন চিকিৎসক রাফিদ ইজিবাইকের যাত্রী জাহিদ নামে একজনের মৃত্যু নিশ্চিত করেন। মৃত জাহিদ হোসেন নলকূপ মিস্ত্রি। তিনি বাড়ি থেকে ইজিবাইকযোগে মঙ্গলবার সকালের দিকে যশোর শহরে আসার পথে এই দুর্ঘটনার শিকার হন।

 

যশোর কোতয়ালী থানার ইনসপেক্টর (তদন্ত) শেখ তাসমিম আলম আলাদা দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, পুলেরহাটে দুর্ঘটনাকবলিত ইজিবাইক ও ট্রাক আটক করা হয়েছে।

Facebook Comments Box

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *