হাসিনুরের হত্যার ইন্ধনদাতা ও পরিকল্পনাকারীকে বিচারের মুখোমুখি হতেই হবে : বাদশাহ্ এমপি

কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আঃ কাঃ ম   সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ এমপি’র  ফুপাত ভাই হাসিনুর রহমান হাজারও মানুষের ভালবাসায় সিক্ত হয়ে চির নিদ্রায় শায়িত হয়েছেন।

২৯ আগস্ট শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পশ্চিম-দক্ষিণ ফিলিপনগর ফুটবল মাঠে নামাজে জানাযা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়।

জানাযা পূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য এ্যাড. সরওয়া জাহান বাদশাহ্, নিহতের বড়ভাই ব্রিগেডিয়ার (অব:) হাবিবুর রহমান, এ্যাড. হাসানুল আসকার হাসু ও নিহতের দোলাভাই রফিকুল ইসলাম।

শোকাহত এমপি বাদশাহ্ বলেন, হাসিনুর আমার ভাই একজন সহজ সরল মানুষ ছিল। কি এমন অপরাধ করলো তাকে এভাবে নৃশংসভাবে হত্যা করা হলো। হাসিনুর এলাকার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের সাথে সম্পৃক্ত ছিল। অত্র এলাকার স্কুল, মসজিদ, গোরস্থানসহ এমন কোন প্রতিষ্ঠান নাই যেখানে হাসিনুরের অবদান নাই। এ হত্যাকান্ডের ইন্ধনদাতা ও পরিকল্পনাকারী যারাই হোক তাদের প্রচলিত আইনে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।

উল্লেখ্য, শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে নিজ বাড়ির পার্শ্ববতী ফিলিপনগর ইউনিয়নের ইসলামপুর ঘোষপাড়া মোড়ে পদ্মা নদীর ধারে হাসিনুর রহমান মাছ ক্রয় করতে যাওয়ার সময় মজিবর রহমান পেছন দিক থেকে অতর্কিত হামলা চালিয়ে হাসিনুর রহমানকে ধারাল হাসুয়া দিয়ে এলোপাতি কুপায়। এসময় হাসিনুর রহমান মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে দৌলতপুর হাসপাতালে নেয়। পরে সকাল সোয়া ৯টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

খবর পেয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ ইসলাম ঘোষপাড়ায় অভিযান চালিয়ে নিজ বাড়ি থেকে ঘাতক মজিবর রহমানকে আটক করেছে। সে ইসলামপুর ঘোষপাড়া এলাকার মৃত মতালি মিস্ত্রির ছেলে।

Facebook Comments Box

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *