সোমবার | ২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



সত্যের পথে অবিচল | ২৪ ঘণ্টা বাংলা সংবাদ

দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেছে ৩২ জন, মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৫২৫১

প্রতিদিনের কুষ্টিয়া অনলাইন নিউজ ডেস্ক

দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেছে ৩২ জন, মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৫২৫১

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একদিনে আরও ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে, আর নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৪৩৬ জন।


বুধবার বিকালে সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির এই সবশেষ তথ্য জানানো হয়।

সেখানে বলা হয়, সকাল ৮টা পর্যন্ত শনাক্ত ১ হাজার ৪৩৬ জনকে নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৬৩ হাজার ৪৭৯ জন হল।

আর গত এক দিনে মারা যাওয়া ৩২ জনকে নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা ৫ হাজার ২৫১ জনে দাঁড়াল।


স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ১ হাজার ৭৮৯ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন গত এক দিনে। তাতে সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে ২ লাখ ৭৫ হাজার ৪৮৭ জন হয়েছে।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়ে ৮ মার্চ, তা সাড়ে তিন লাখ পেরিয়ে যায় ২১ সেপ্টেম্বর। এর মধ্যে ২ জুলাই ৪ হাজার ১৯ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ শনাক্ত।


প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ২২ সেপ্টেম্বর সেই সংখ্যা পাঁচ হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৩০ জুন এক দিনেই ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ মৃত্যু।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় বিশ্বে শনাক্তের দিক থেকে পঞ্চদশ স্থানে আছে বাংলাদেশ, আর মৃতের সংখ্যায় রয়েছে ২৯তম অবস্থানে।

বিশ্বে এ পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ইতোমধ্যে ৩ কোটি ৩৬ লাখ পেরিয়েছে; মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ১০ লাখ ৮ হাজার।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১০৮টি ল্যাবে ১৩ হাজার ৪০৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ১৯ লাখ ৪৭ হাজার ৬৫৫টি নমুনা।

২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১০ দশমিক ৭১ শতাংশ, এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৮ দশমিক ৬৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭৫ দশমিক ৭৯ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৪ শতাংশ।

গত এক দিনে যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ২৪ জন, নারী ৮ জন। তাদের মধ্যে ৩১ জন হাসপাতালে এবং ১ জন বাড়িতে মারা গেছেন।

মৃতদের মধ্যে ২৪ জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি, ৩ জন করে মোট ৬ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ ও ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে এবং ২ জনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ছিল।

২৪ জন ঢাকা বিভাগের, ২ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৪ জন রাজশাহী বিভাগের এবং ১ জন করে মোট ২ জন সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।

দেশে এ পর্যন্ত মারা যাওয়া ৫ হাজার ২৫১ জনের মধ্যে ৪ হাজার ৬৩ জনই পুরুষ এবং ১ হাজার ১৮৮ জন নারী।

তাদের মধ্যে ২ হাজার ৬৭৭ জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি। এছাড়া ১ হাজার ৪১২ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, ৬৭৮ জনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে, ২৯৯ জনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে, ১১৯ জনের বয়স ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে, ৪২ জনের বয়স ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে এবং ২৪ জনের বয়স ছিল ১০ বছরের কম।

এর মধ্যে ২ হাজার ৬৩১ জন ঢাকা বিভাগের, ১ হাজার ৭৫ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৩৪৫ জন রাজশাহী বিভাগের, ৪৩৫ জন খুলনা বিভাগের, ১৮৭ জন বরিশাল বিভাগের, ২৩১ জন সিলেট বিভাগের, ২৩৭ জন রংপুর বিভাগের এবং ১১০ জন ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন

Facebook Comments Box

Posted ১০:১৮ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

protidinerkushtia.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

মোঃ শামীম আসরাফ, সম্পাদক ও প্রকাশক
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় :

ঝাউদিয়া বাবলু বাজার, দৌলতপুর, কুষ্টিয়া ফোনঃ +৮৮ ০১৭৬৩-৮৪৩৫৮৮ ই-মেইল: protidinarkushtia@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদনকৃত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
error: Content is protected !!